Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Wednesday, 5 January 2022

জঙ্গলে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার মন্দিরের চুরি যাওয়া বহু মূল্যবান অলঙ্কার

 

Stolen-ornaments-recovered-by-digging-in-the-forest

সৌদীপ ভট্টাচার্য : ‌এই রাজ্য এবং ভিন রাজ্যে অভিযান চালিয়ে উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙার করুণাময়ী মন্দিরের চুরির ঘটনার কিনারা করল পুলিশ। জঙ্গলের ভেতরে মাটির নিচ থেকে উদ্ধার হয়েছে চুরির প্রায় ৭৫ শতাংশ সামগ্রী। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৬ দুষ্কৃতীকে। এই ঘটনা বারাসত পুলিশ জেলার আমডাঙা থানার বড় সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে। বুধবার সাংবাদিক বৈঠক করে এই সাফল্যের কথা জানান বারাসত পুলিশ জেলার সুপার রাজনারায়ণ মুখার্জী।



শতাব্দী প্রাচীন, ঐতিহ্যবাহী আমডাঙা করুণাময়ী কালী মন্দিরে বেশ কিছু দিন আগে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটে। সিসি ক্যামেরা, মন্দিরে নিরাপত্তা রক্ষী মোতায়েন থাকা সত্ত্বেও মন্দিরের জানালা ভেঙে বিগ্রহের গা থেকে স্বর্ণালঙ্কার সহ অন্যান্য মূল্যবান সামগ্রী চুরি করে পালায় দুষ্কৃতীরা। চুরি যাওয়া সামগ্রীর আনুমানিক মূল্য কয়েক কোটি টাকা।  


চুরির ঘটনায় কর্তব্যে গাফিলতিতে আমডাঙা থানার একজন কনস্টেবল এবং একজন হোমগার্ডকে সাসপেন্ড করে জেলা পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ মধ্যমগ্রাম এলাকার একটি মন্দিরের চুরির ঘটনার ধরনের সঙ্গে মিল পায়। সেই ঘটনাকে সামনে রেখে এরপর পুলিশ বুঝতে পারে, এই চুরির পেছনে বানজারার দলের হাত আছে।  


এরপর পুলিশ প্রথমে পশ্চিম মেদিনীপুরের গরবেতা থানার সাতবাকুড়া এলাকা থেকে রঘু ব্যাধ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার বোনের বাড়িতে জঙ্গলের ভেতরে একটি পাত্রে মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা চুরি যাওয়া গয়না উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর বাঁকুড়া জেলার রায়পুর, হিরবাঁধ এবং ওডিষা থেকে আশিক সিং, সূর্য সিং, জগদাল সিং, জাগিন্দর সিং এবং সুকুর সিং নামে আরও ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 






  


No comments:

Post a Comment