Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Monday, 30 August 2021

দিনের টুকিটাকি : ‌৩০ আগস্ট, ২০২১

 স্ত্রীর মাথায় কাঁচির আঘাত

স্ত্রীকে মাথায় কাঁচি দিয়ে আঘাত করে গ্রেপ্তার হল স্বামী। ধৃত সুকুমার সরকারের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার দক্ষিণ হাবরা ঝরঝরিয়াতলায়। মিরা বিশ্বাসের সঙ্গে ছ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের একটি চার বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে। সুকুমার সরকার প্রায় দিনই মদ্যপান করে বাড়ী ফিরত। আর বাড়ি ফিরেই স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি করত। জুয়া খেলে অর্থ নষ্ট করতো। সংসারের বিষয়ে উদাসীন থাকত। রবিবারও মদ্যপান করে রাতে বাড়ি ফেরে সুকুমার। বাড়ি ফিরেই স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি শুরু করে। স্ত্রী সেলাইয়ের কাজ করেন। পাশেই কাঁচি ছিল। সেই কাঁচি দিয়েই স্ত্রীর মাথায় আঘাত করে সুকুমার। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে হাবরা হাসপাতলে নিয়ে গেলে তাঁর মাথায় দুটি সেলাই পরে। স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে  রাতেই সুকুমার সরকারকে গ্রেপ্তার করে হাবরা থানা পুলিশ। আজ তাকে বারাসাত আদালতে পাঠানো হয়। 


গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার অশোকনগর থানার কল্যাণগড় এলাকায় এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। জানা গেছে, ১০ দিন আগে গৃহবধূ শতাব্দী চৌধুরীর বাবা শান্তিপ্রসাদ চৌধুরী মারা যান। সেই শোক কাটিয়ে উঠতে পারেননি ওই গৃহবধূ। এমনটাই দাবি পরিবারের লোকজনের। পরিবারের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, কিছুদিন ধরে বাবাকে স্বপ্নে দেখছিলেন ওই বধূ। সেকথা তাঁর স্বামী এবং প্রতিবেশীদেরকে জানান ওই বধূ। রবিবার রাতে তাঁর স্বামীর কাছে খবর যায়, ঘরের দরজা বন্ধ করে বসে আছেন তাঁর স্ত্রী শতাব্দী। খবর পেয়ে স্বামী ছুটে যান বাড়িতে। ঘরের দরজা ভেঙে দেখতে পান, গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলছে স্ত্রী শতাব্দী চৌধুরীর দেহ। পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি তাঁকে হাবরা স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। 


মিলছে না ভ্যাকসিন

করোনার ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য ৭০ উর্দ্ধ এক ব্যক্তি গত তিন দিন ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে। বৃদ্ধের অভিযোগ, ভোর তিনটে থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার পরও ভ্যাকসিন না পেয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে। আর যাঁরা পঞ্চায়েত সদস্যের পছন্দের মানুষ, তাঁদের লাইনের কোনও বালাই নেই। নেই বয়সের কোনও বিধি নিষেধ। গত তিন দিনে ধরে নমিতা পাল দেখে যাচ্ছেন, তাঁর হাঁটুর বয়সের নাতি–নাতনিরা ভ্যাকসিন নিয়ে বেড়িয়ে আসছে। কিন্তু তিনি ভ্যাকসিন পাচ্ছেন না। হাবরা ২ নং ব্লকের মানিকনগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ছবি এটি। এখানে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষদের অভিযোগ, স্লিপ এর মাধ্যমে পঞ্চায়েত সদস্যরা নিজের ইচ্ছেমত মানুষকে ভ্যাকসিন পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করছেন। স্লিপ বিলির ক্ষেত্রে কারা অগ্রাধিকার পাবেন, তা নিয়ে সরকারের নির্দেশও মান হচ্ছে না। ফলে ৭০ উর্দ্ধ মানুষকেও দিনের পর দিন ভোর তিনটে থেকে লাইনে দাঁড়িয়েও ফিরে যেতে হচ্ছে। 


কৃষ্ণ সেজে বার্তা

করোনাকালে দীর্ঘদিন বন্ধ স্কুল। ঘরেই বন্দী শিশুরা। তাই কৃষ্ণের ভাবাদর্শকে তুলে ধরতে আর শিশুমনে কিছুটা মানসিক শান্তি দিতে অনলাইনে কৃষ্ণ সাজো প্রতিযোগিতার আয়োজন করে সংস্কার ভারতী বীরভূম জেলা শাখা। আর তাতে কৃষ্ণ সেজে নিজেকে মেলে ধরে করোনা থেকে মুক্তির আহ্বান কৃষ্ণরুপী ছোট্ট ঋতম কৃষ্ণ দাসের। জন্মাষ্টমীর পুণ্যলগ্নে সংস্কার ভারতী সিউড়ি শাখা এবছর সামাজিক মাধ্যমে কৃষ্ণ সাজো প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল। অতিমারীর কারণে গতবছর এই অনুষ্ঠানটি বন্ধ থাকে। কিন্তু এবার অতিমারী কিছুটা কমলেও সামাজিক মাধ্যমে 'অনলাইন শ্রী কৃষ্ণ রূপসজ্জা প্রদর্শন'‌ নাম দিয়ে অনুষ্ঠানটি করা হয়। জনমানসে এই প্রদর্শনী ব্যাপক সাড়া ফেলে। সংস্কার ভারতীর প্রাদেশিক কর্মকর্তা হেমাভ সেনগুপ্ত, শুধু বীরভূম নয়, কলকাতা, বর্ধমান, এমনকি ভিন রাজ্য ব্যাঙ্গালোর থেকেও শিশুরা অংশগ্রহন করে এই প্রতিযোগিতায়। প্রায় ২০০ জন শিশু এতে অংশ নেয়। সংস্থার পক্ষ থেকে প্রত্যেক শিশুকে সংশাপত্র দেওয়া হয়। 


দিনরাতের ফুটবল

সরকারি উদ্যোগে খেলা দিবস উদযাপিত হয়েছে আগেই। দিন দশেকের মধ্যেই মোহাম্মদ বাজারের রাসপুরে বিবেকানন্দ স্পোর্টিং একাডেমীর উদ্যোগে আদিবাসী যুবকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ফুটবল প্রতিযোগিতা। দু'দিনব্যপী এই ফুটবল প্রতিযোগিতায় মোট ১৬ টি দল অংশগ্রহণ করে। ফাইনালে ভগবতীপুর আদিবাসী একাদশ টাইব্রেকারে মুর্শিদাবাদ কামারবুনি আদিবাসী একাদশকে ৩–১ গোলে পরাজিত করে। মূল পর্বে অংশগ্রহণকারী প্লেয়ারদের সঙ্গে পরিচিত হন জেলাশাসক বিধান রায় ও তাঁর স্ত্রী ইন্দ্রানী রায়। খেলা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের হাতে ট্রফি তুলে দেন তাঁরা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ বাজারের বিডিও অর্ঘ্য গুহ, সুভাষ ঘোষাল, সাধন সিনহা, বিদ্যুৎ মন্ডল প্রমুখ।

No comments:

Post a Comment