Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Thursday, 23 September 2021

‌তৃণমূলে ফিরছেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং ? ‌পার্থ ভৌমিকের মন্তব্যে জল্পনা

BJP-MP-Arjun-Singh-is-returning-to-the-TMC?

সৌদীপ ভট্টাচার্য : তৃণমূলে ফিরছেন ব‌্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং অথবা ব্যারাকপুরের কোনও বড় মাপের বিজেপি নেতা। বৃহস্পতিবার বারাসতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এমনই জল্পনা উস্কে দিলেন তৃমমূল বিধায়ক পার্থ ভৌমিক। ব্যারাকপুর মহকুমায় যে কর্মীরা তৃণমূল দল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন, তাঁদের বোধোদয় হওয়ায় তাঁরা তৃণমূলে ফিরেছেন। নেতৃস্থানীয় ও বড় মাপের নেতারা যে দলে ফিরবেন, তারও ইঙ্গিত রয়েছে বলে এদিন মন্তব্য করেন ব্যারাকপুর দমদম তৃণমূল সাংগঠনিক জেলার সভাপতি পার্থ ভৌমিক। 


বৃহস্পতিবার বারাসতে একটি অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অকপট ছিলেন পার্থ ভৌমিক। অর্জুন সিংহের মতো নেতার তৃণমূলে ফেরার সম্ভাবনা নিয়ে পার্থ ভৌমিক বলেছেন, '‌২০১৯ সালে ভাটপাড়ার বিধায়ক দল ছাড়ার সময় অনেকে দল ছেড়েছিলেন। তাঁরা অনেকেরই এখন উপলব্ধি যে, সেই সিদ্ধান্ত ভুল হয়েছিল। সেই উপলব্ধি থেকে তাঁরা তৃণমূলে ফেরার চেষ্টা করছেন। এখন তৃণমূল দল বেনোজল আটকাতে লকগেট আটকে রেখেছে। তৃণমূলের লকগেটে ঘরওয়াপসির জন্য ব্যারাকপুর মহকুমায় অতীতে তৃণমূল ছেড়ে যাওয়া বিজেপি নেতারাও ধাক্কা মারছেন।'‌ 


তৃণমূলের লকগেটে ধাক্কা মারছেন যারা, তাঁদের ঢুকতে দেওয়া হবে কিনা এবং দিলেও কখন তাদের দলে ফেরানো হবে, তার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে দল। এদিন এমনই জানালেন নৈহাটির বিধায়ক ও ব্যারাকপুর–দমদমের তৃণমূলের শীর্ষ নেতা পার্থ ভৌমিক। ফলে পার্থ ভৌমিকের এদিনের মন্তব্যে অর্জুন সিংহ সহ একাধিক বিজেপি নেতাকে নিয়ে জল্পনা বাড়ছে বলে মনে করা হচ্ছে। বাবুল সুপ্রিয়র পরে আবার কি বড়সড় চমক দেখা যাবে রাজনৈতিক দলবদলে? ঘরওয়াপাশি কি ঘটবে অর্জুন সিংহের– পার্থ ভৌমিক কিন্তু এদিন সেই জল্পনা জিইয়ে রাখলেন।


অন্যদিকে,  ভাটপাড়ায় এক কোভিড  টিকাকরণে তৃণমূলের ব্যানার দেখা যাওয়ায় সরাসরি আত্মসমালোচনার পথে পার্থ ভৌমিক। তাঁর মতে, যদি কেউ সরকারী টিকাকরণকে দলীয় তকমা দিতে চায়, তাহলে ভুল করছে। এব্যাপারে সরাসরি ভাটপাড়ার স্থানীয় তৃণমূল নেতা রামকৃষ্ণ পাঁজার বক্তব্যের বিরোধিতা করলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থ ভৌমিক। 


উল্লেখ্য, রামকৃষ্ণ পাঁজার বক্তব্য ছিল, তৃণমূল মানুষের জন্য কাজ করছে। তিনি ব্যানারের স্বপক্ষে সওয়াল করেছিলেন। ব্যারাকপুর মহকুমায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে একাধিক মানুষের। যার মধ্যে খড়দায় একই পরিবারের তিনজনের জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে রাজ্য সরকারের অধীন বিদ্যুৎ বিভাগের দায় এড়িয়ে যান নি জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থ ভৌমিক। 


গতরাতেও আগরপাড়ার এক বাসিন্দা বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন। যেকোনও মৃত্যুই দুর্ভাগ্যজনক। সেক্ষেত্রে দায় যেমন বিদ্যুৎ বিভাগের, তেমনই এক্ষেত্রে মানুষের সচেতনতার অভাব রয়েছে। আগামী দিনে এরকম ঘটনা যেন না ঘটে, সে ব্যাপারে যথাযথ নজর রাখার বিষয় সুনিশ্চিত করার জন্য যা করণীয় আছে, তা করা হবে বলে আশ্বাস দেন পার্থ ভৌমিক।





No comments:

Post a Comment