Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Wednesday, 12 January 2022

বনগাঁয় আপাতত লকডাউন নয়, জ্বরে আক্রান্তদের বাজারে প্রবেশ নিষেধ

 ‌

There-is-no-lockdown-in-Bangaon-at-present

সমকালীন প্রতিবেদন : জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তিকে এখন থেকে আর বনগাঁর কোনও বাজারে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। বনগাঁ পুরসভার পক্ষ থেকে এমনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এই নির্দেশিকা জারি থাকবে। বনগাঁ পুরসভা সূত্রে এমনই জানা গেছে। পুর প্রশাসক গোপাল শেঠ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার থেকে বনগাঁর প্রতিটি বাজারে থার্মাল গান নিয়ে পুরসভার প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। বাজারে আগত সমস্ত মানুষের শরীরের তাপমাত্রা মাপা হবে। যদি কারও শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকে, তাহলে তৎক্ষনাৎ সেই ব্যক্তিকে বাড়ি ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হবে।


করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে পরায় চিন্তিত প্রশাসন। ফলে রাজ্যের এমনকি উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বিভিন্ন পুর এলাকায় ইতিমধ্যেই সপ্তাহের বিভিন্ন দিনে বাজার বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও বনগাঁ পুরসভা এখনই বাজার বন্ধ বা লকডাউনের পথে হাঁটতে চাইছে না। এই প্রসঙ্গে পুর প্রশাসকের বক্তব্য, রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই ধরনের কোনও সিদ্ধান্তের নির্দেশ না আসলে পুরসভার পক্ষ থেকে এখনই লকডাউনের পথে যাওয়া হবে না। কারণ, তাতে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন।


এর পাশাপাশি, বাংলাদেশ থেকে আগত যাত্রীদের মধ্যে যাদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসবে, তাঁদেরকে যাতে সঙ্গে সঙ্গে আলাদা করে অ্যাম্বুলেন্সে করে কলকাতায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়, তারজন্য পুরসভার পক্ষ থেকে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ট্রাক চালকদেরও যাতে বনগাঁ হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যায়, তার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। 


এদিকে, বুধবার স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে বনগাঁ পুরসভার পক্ষ থেকে পুরসভা এলাকার ১৫ হাজার মানুষের মধ্যে ফল, মাস্ক, স্যানিটাইজার এবং থার্মোমিটার বিতরণ করা হল। ইছামতী নদীর ধার ধরে নদীপারের মানুষদের মধ্যেও এই সামগ্রী বিতরণ করা হয়। 

অন্যদিকে, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে বনগাঁ ব্লকের ছয়ঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় এখন থেকে কাঁচা বাজার এবং দোকান সকাল ৬ টা থেকে দুপুর ২ টো পর্যন্ত খোলা থাকবে। জরুরী প্রয়োজনীয় দোকান ছাড়া বাজার কমিটি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত দোকানগুলি দুটি ভাগে ভাগ করে খোলা রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকেই এই নির্দেশিকা কার্যকরী হবে বলে জানিয়েছেন ছয়ঘরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান প্রসেনজিৎ ঘোষ।






No comments:

Post a Comment