Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, 27 November 2021

বনগাঁয় তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল মেটাতে এবার জেলা নেতৃত্বের হস্তক্ষেপ

Bangaon-TMC-group-quarrel

সমকালীন প্রতিবেদন : ‌বনগাঁয় তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল মেটাতে এবার মাঠে নামছেন বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সভানেত্রী আলোরাণী সরকার। শনিবার রাতে তিনি জানান, এব্যাপারে সব পক্ষকে ডেকে কথা বলবেন তিনি। তাঁর দাবি, বড় দল। তাই নানা মত থাকে। কিন্তু কোনও গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নেই। রবিবার দলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার নিজস্ব কার্যালয়ের উদ্বোধন। এদিন সেখানে দলের রাজ্যস্তরের নেতা, মন্ত্রী উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। তার আগে জেলা সভানেত্রীর এমন মন্তব্যের যথেষ্ট গুরুত্ব আছে বলে মনে করা হচ্ছে।


উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগে একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ২০১৫ সালের বনগাঁ পুরসভা নির্বাচনে ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের ভোট প্রক্রিয়া নিয়ে বেশকিছু মন্তব্য করেন তৃণমূলের বনগাঁ শহরের প্রাক্তন সভাপতি শঙ্কর আঢ্য। তাঁর সেই বক্তব্যকে ঘিরে বনগাঁর রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। তার পেক্ষিতে দলীয় নেতৃত্বের একাংশ সাংবাদিক বৈঠক করে তাঁদের মতামত প্রকাশ করেন। শঙ্কর আঢ্যর সেই বক্তব্যের বিরোধীতা, নিন্দা করে বেশ কিছু মন্তব্য করেন দলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার যুব সভাপতি সন্দীপ দেবনাথ।


সেই সাংবাদিক বৈঠকের প্রেক্ষিতে পাল্টা সাংবাদিক বৈঠক করে বেশ কিছু প্রশ্ন তোলেন শঙ্কর আঢ্য। সেখানে দলে স্থানীয় নেতৃত্বের এক্তিয়ার, পুরনো কর্মীদের গুরুত্ব না দেওয়া, কিছু নেতানেত্রীর কর্মকান্ড ইত্যাদি বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। এব্যাপারে দলের রাজ্য নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে স্থানীয় নেতৃত্বের বিষয়ে কিছু আবেদনও রাখা হয়। দলের একে অপরের বিরুদ্ধে এমন একাধিক সাংবাদিক বৈঠক করার ঘটনায় বনগাঁয় তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল প্রকাশ্যে চলে এসেছে। আর তাই নিয়ে কটূক্তি করতে ছাড়ছে না বিরোধীরা।  


এই প্রসঙ্গে এদিন দলের জেলা সভানেত্রী আলোরাণী সরকার দাবি করেন, 'কোনও গোষ্ঠীকোন্দল নেই। বড় দল, ভারি দল। তাই মাঝেমধ্যে নিজেদের মধ্যে একটু লড়াই হয়। এক জায়গায় থাকতে গেলে এমন একটু হয়। তবে এর পর থেকে আর এমন হবে না। কেন এমন হয়েছে, এই বিষয়ে সব পক্ষকে ডেকে কথা বলে মিটিয়ে নেওয়া হবে। আমাকে কিছু করতে গেলে দলের উচ্চ নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলে নিতে হয়।' তিনি আরও‌ বলেন, 'দলের কাজটি সত্যনারায়ণ পুজোর মতো। কানে শুনলেই নিজের উদ্যোগে সেই কর্মকান্ডে উপস্থিত হতে হয়।'‌ 




No comments:

Post a Comment