Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Wednesday, 20 October 2021

GANG RAPE : বনগাঁয় মদ খাইয়ে যুবতীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ, ধৃত ১

 

The-girl-was-taken-away-and-gang-raped

সমকালীন প্রতিবেদন : ‌জন্মদিনের পার্টিতে মদ খাইয়ে যুবতীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ (GANG RAPE) করল  তিন যুবক। ঘটনাস্থল থেকে এক অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। অসুস্থ ওই যুবতী বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ (BONGA) থানার ভরতপুর (BHOROTPUR) গ্রামের এই ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। 


পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভরতপুরের বাসিন্দা সুদীপ বিশ্বাস নামে এক যুবকের মঙ্গলবার জন্মদিন ছিল। এদিন সন্ধেয় তাকে চমক দেওয়ার জন্য জনা দশেক বন্ধু কেক হাতে নিয়ে সুদীপের বাড়িতে হাজির হয়। তাদের মধ্যে দুজন যুবতীও ছিল। সুদীপ জানান, বাইরে থেকে যে বন্ধু এবং বান্ধবীরা এসেছিল, তাদের বেশ কয়েকজন তাদের সঙ্গে আনা বিয়ার পান করে। নির্যাতিতা এবং অভিযুক্ত ৩ যুবকও এই দলে রয়েছে। 


রাত ৯ টা নাগাদ সুদীপ বন্ধুদের বাড়ি ফিরে যেতে বলে। আর সে নিয়ে দুই বান্ধবীকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর এক বান্ধবীর ভাই এসে বলে যে, তাঁর দিদিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এই খবর শুনে সুদীপও ওই বান্ধবীকে খুঁজতে বের হয়। বেশ কিছুক্ষণ পর বাড়ির পাশের একটি আমবাগান সংলগ্ন একটি ঘর থেকে বিবস্ত্র অবস্থায় নিখোঁজ ওই যুবতীকে উদ্ধার করে তাঁর বাড়ির লোকেরা। সেখান থেকেই আটক করা হয় দেবব্রত রায় নামে এক অভিযুক্তকে। বাকি দুই অভিযুক্ত শোভন রায় এবং সুজিত বিশ্বাস ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।


নির্যাতিতা যুবতীর ভাই জানান, দিদিকে ঘটনাস্থল থেকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। সেখান থেকে ছেলেদের পোষাক উদ্ধার হয়েছে। নির্যাতীতা যুবতীকে বনগাঁ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে তিনি বাড়ির লোকদের জানান, জন্মদিনের পার্টিতে যাওয়ার পর বন্ধুরা তাকে জোর করে বিয়ার খাওয়ায়। এরপর রাতে বাড়ির কাছে এসে বাইরেই দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। এই সময় শোভন, সুজিত এবং দেবব্রত নামে তিন বন্ধু তাঁর মুখ চেপে ধরে জোর করে বাড়ির পাশের একটি আমবাগানে নিয়ে গিয়ে তাঁকে গণধর্ষণ করে। 


এদের মধ্যে দেবব্রতকে ধরে ফেলেন যুবতীর ভাই। বাকি দুজন পালিয়ে যায়। পুলিশ তাদের সন্ধান চালাচ্ছে। পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আক্রান্ত যুবতীর বাড়ি ও মামার বাড়ি ভরতপুর এলাকায়। তিনি পেশায় বিউটিশিয়ান। মা ও যুবতী গোবরাপুর এলাকায় বর্তমানে ভাড়া থাকেন। লক্ষ্মী পুজোর মেলা উপলক্ষে ওই যুবতী মামার বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলেন। আর সেখান থেকেই মঙ্গলবার রাতে ভরতপুরে বন্ধু সুদীপ বিশ্বাসের জন্মদিনের পার্টিতে কয়েকজন বন্ধু বান্ধবীদের সঙ্গে তিনিও গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পথে এই ঘটনা ঘটে।




No comments:

Post a Comment