Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Tuesday, 26 October 2021

NATIONAL AWARD : সেরা সঙ্গীত পরিচালকের জাতীয় পুরষ্কারে সম্মানিত বনগাঁর বিশাখজ্যোতি

 

Best-music-director

সমকালীন প্রতিবেদন : ‌হিন্দি নন ফিচার ফিল্ম বিভাগে সেরা সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে জাতীয় পুরষ্কার পেলেন বিশাখজ্যোতি (BISHAKHJYOTI)। সোমবার দিল্লিতে ২০১৯ সালের ৬৭ তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার (NATIONAL FILM AWARD) প্রদান অনুষ্ঠানে তাঁর হাতে এই সম্মান তুলে দেন ভারতের উপ রাষ্ট্রপতি (VICE PRESIDENT) ভেঙ্কাইয়া নাইডু। উপস্থিত ছিলেন একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং চলচ্চিত্র জগতের বিশিষ্টজনেরা। এতো অল্প বয়সে চলচ্চিত্র জগতে দেশের সেরা এই সম্মান পেয়ে আপ্লুত বিশাখজ্যোতি। 

আদপে উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ শহরের বাসিন্দা বিশাখজ্যোতির ২০০৭ সালে জি বাংলা সারেগামাপা দিয়ে পথ চলা শুরু হয়েছিল। তারই সূত্র ধরে কলকাতা হয়ে হিন্দি জি সারেগামাপা তে সাফল্যের সূত্র ধরে মুম্বাইতে (MUMBAI) পা রাখা শুরু। বর্তমানে মুম্বইয়ের কান্দিভালি ইস্টের ঠাকুর ভিলেজের বাসিন্দা বিশাখজ্যোতি গায়কের পাশাপাশি সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে নিজেকে মুম্বাইতে প্রতিষ্ঠিত করার লড়াই চালিয়ে যান। ১৪ বছর পর সেই লড়াইয়ের স্বীকৃতি মিলল এদিন।


২০১৪ সালে ফিচার ফিল্ম 'বাবলু হ্যাপি হ্যায়' ছবিতে সঙ্গীত পরিচালক (MUSIC DIRECTOR হিসেবে প্রথম আত্মপ্রকাশ ঘটে বিশাখের। এর পর আরও কয়েকটি সিনেমায় সুর দেওয়ার পাশাপাশি নিজে গানও গেয়েছেন। বিভিন্ন সিনেমায় তাঁর দেওয়া সুরে গান গেয়েছেন সোনু নিগম, মিকা সিং, শঙ্কর মহাদেবন, মহালক্ষ্মী আইয়ার, অমিত কুমার, জাভেদ আলির মতো শিল্পীরা। এছাড়া, বেশকিছু বিজ্ঞাপনী ছবিতেও কাজ করেছেন তিনি। গত বছর অ্যামাজন প্রাইমের জন্য 'গনকেশ' নামে একটি ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক করেছেন।


'ক্রান্তিদর্শী গুরুজী' ‌নামে একটি হিন্দি নন ফিচার ফিল্মে সুর দেওয়ার সুবাদে ২০১৯ সালের সেরা সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে নির্বাচিত হন বিশাখ (𝟔𝟕𝐭𝐡 𝐍𝐚𝐭𝐢𝐨𝐧𝐚𝐥 𝐅𝐢𝐥𝐦 𝐀𝐰𝐚𝐫𝐝 for 𝐁𝐞𝐬𝐭 𝐌𝐮𝐬𝐢𝐜 𝐃𝐢𝐫𝐞𝐜𝐭𝐢𝐨𝐧 for the film "𝐊𝐫𝐚𝐧𝐭𝐢 𝐃𝐚𝐫𝐬𝐡𝐢 𝐆𝐮𝐫𝐮𝐣𝐢 - 𝐀𝐡𝐞𝐚𝐝 𝐎𝐟 𝐓𝐢𝐦𝐞𝐬")। করোনা পরিস্থিতির কারণে একসময় এই পুরষ্কার প্রদান অনুষ্ঠান ভার্চুয়ালি হবার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা ফিজিক্যালি অনুষ্ঠিত হল এদিন। দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে আয়োজিত এদিনের অনুষ্ঠানে দাদাসাহেব ফালকে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয় অভিনেতা রজনীকান্তের হাতে। সেরা অভিনেতার পুরষ্কার পান দক্ষিণী অভিনেতা ধনুষ।


পুরষ্কার পেয়ে আপ্লুত বিশাখজ্যোতি জানালেন, 'আজ আমার জীবনের সবথেকে বড় দিন। সঙ্গীত এবং চলচ্চিত জগতের প্রতিটি মানুষের কাছে স্বপ্ন থাকে দেশের এই সেরা সম্মান পাওয়ার। এতো অল্প বয়সে আমি এই পুরষ্কার পেয়ে নবীন প্রজন্মের কাছে আমি উৎসাহের কারণ হয়ে গেলাম। আমার দায়িত্ব আরও বেড়ে গেল। আগামী দিনে এমন আরও পুরষ্কারে আমার ঝুলি যাতে ভরে যায়, সেই চেষ্টাই করবো।'‌



No comments:

Post a Comment