Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, 25 September 2021

‌বনগাঁর আকাইপুরে ভ্যাকসিন না পেয়ে বিক্ষোভ

Demonstration-for-not-getting-vaccine

সমকালীন প্রতিবেদন : সারারাত ধরে ভ্যাকসিনের জন্য লাইনে দাঁড়িয়েও ভ্যাকসিন দিতে না পেরে বিক্ষোভ দেখালেন এলাকার বেশ কিছু মানুষ‌। অভিযোগ, যারা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন, তাঁদের কুপন না দিয়ে পরিচিতদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ভ্যাকসিনের কুপন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার উত্তেজনা ছড়াল উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ ব্লকের আকাইপুর এলাকায়। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ভ্যাকসিন কেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়।


জানা গেছে, শনিবার বনগাঁ ব্লকের আকাইপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত আকাইপুর উচ্চ বিদ্যাল‌য়ে ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য বিশেষ ক্যাম্প বসে। সেখানে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০০০ জন মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। আগের দিনই এই খবর পেয়ে এলাকার মানুষেদের অনেকেই ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য রাত তিনটে থেকে ওই স্কুলে লাইন দেন। 


অভিযোগ, এই ভাবে সারারাত ধরে লাইন দেওয়ার পরেও অনেকে ভ্যাকসিন দিতে পারেন নি। ভ্যাকসিন না পাওয়া গ্রামবাসীদের অভিযোগ, তাঁরা সারারাত ধরে লাইনে দাঁড়িয়েও ভ্যাকসিনের কুপন পেলেন না। অথচ যারা বাড়িতে বসে ছিলেন, তাঁরা কুপন হাতে নিয়ে এসে দিব্যি ভ্যাকসিন নিয়ে চলে গেলেন। তাঁদের আরও অভিযোগ, পঞ্চায়েত প্রধান তাঁর পরিচিত মানুষদের মধ্যে এই কুপন বিলি করেছেন। 


এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ভ্যাকসিন কেন্দ্রের সামনে গোলমাল শুরু হয়। ঘটনাস্থলে হাজির হন পঞ্চায়েতের বিরোধী দলের সদস্যরা। তাঁরা এসে ভ্যাকসিন কেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন। এই গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরোধী দলের সদস্য বিকাশ ঘোষের অভিযোগ, '‌পঞ্চায়েত প্রধান তাঁর পরিচিত মানুষদের মধ্যে বিলি করেছেন। অথচ যারা সারারাত ধরে ভ্যাকসিনের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন, তাঁরা কেউ ভ্যাকসিন পেলেন না।'‌ 


তাঁর আরও অভিযোগ, '‌সাধারণ মানুষ তাঁর কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন, ভ্যাকসিনের কুপন কিছু ক্ষেত্রে টাকার বিনিময়ে বিলি করা হয়েছে।'‌ তাঁর দাবি, 'আমরা প্রধানের কাছে দাবি করেছিলাম, পঞ্চায়েতের যতজন সদস্য আছেন, তাঁদের প্রত্যেককে কিছু কিছু ‌কুপন দেওয়া হোক, যাতে তাঁরা তাঁদের পরিচিতদের মধ্যে ওই কুপন বিলি করতে পারেন। কিন্তু প্রধান সেই প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে তিনি নিজের পছন্দের লোকদের মধ্যে কুপন বিলি করেছেন।'‌ 


এব্যাপারে আকাইপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান উজ্জ্বল কুমার পাল বলেন, '‌কুপন বিক্রির যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন। ব্লক প্রশাসনের কাছ থেকে আমি এক হাজার কুপন পেয়েছিলাম, সেগুলি এলাকার বয়স্ক মানুষ, গর্ভবতী মহিলা এবং বাড়িতে ছোট বাচ্চা আছে এমন মহিলাদের মধ্যে বিলি করা হয়েছে। এর পরেও এদিন ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য যারা লাইনে অপেক্ষা করছিলেন, তাঁদের কথা ভেবে প্রশাসনের কাছে আরও ৪০০ টি কুপনের জন্য আবেদন জানিয়েছিলাম। বিরোধীদের কাজই শুধু বিরোধীতা করা।'










No comments:

Post a Comment