Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Thursday, 9 September 2021

বাগদায় আর্মি অফিসার পরিচয় দিয়ে বিয়ে করে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে গ্রেপ্তার প্রতারক

 

Arrest-fraud

সমকালীন প্রতিবেদন : ভুয়ো চিকিৎসক, ভুয়ো আইপিএস অফিসারের পর এবার ভুয়ো আর্মি অফিসার ধরা পরল উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানা এলাকায়। নিজেকে আর্মি অফিসার পরিচয় দিয়ে এক যুবতীকে বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি থেকে ধাপে ধাপে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে সে। পাশাপাশি, এলাকার যুবকদের সেনাবাহিনীতে চাকরি দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেয়  ওই প্রতারক। অবশেষে নিজের স্ত্রীই তাকে পুলিশের হাতে তুলে দিল।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুভাশিষ দাস নামে ওই ব্যক্তির বাড়ি পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা থানার মির্জাবাটি এলাকায় সে নিজেকে আর্মি অফিসার পরিচয় দিয়ে ভুয়ো কাগজপত্র দেখিয়ে এবছরের ২১ মার্চ বাগদা থানার বেয়াড়া গ্রামের শর্মি বিশ্বাস নামে এক যুবতীকে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীকে তাঁর বাপের বাড়িতে রেখে দেয় সে। শ্বশুরবাড়ির লোক এবং নিজের স্ত্রীকে বোঝায় যে, করোনা পরিস্থিতির কারণে অ্যাকাউন্টে বেতনের টাকা ঠিকমতো ঢুকছে না। তাই খরচ চালাতে তাকে যেন ধার হিসেবে কিছু টাকা দেওয়া হয়। 

এইভাবে গত কয়েক মাসে সে শ্বশুরবাড়ি এবং তাঁদের আত্মীয়দের কাছ থেকে ধাপে ধাপে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়। শুধু তাই নয়, ওই এলাকার যুবকদের সেনাবাহিনীতে চাকরি দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেয় সে। দিনের পর দিন এমন চলতে থাকায় সন্দেহ দেখা দেয় ওই যুবকের শ্বশুরবাড়ির এলাকার মানুষদের। দিন কয়েক আগে সে ফের বেতনের সমস্যার কারণ দেখিয়ে আবার টাকা চায়। আর তখনই তাঁরা বুঝতে পারেন, ওই যুবক একজন প্রতারক। 

তাঁরা এরপর পূর্ব বর্ধমানের কালনা থানা এলাকায় ওই যুবকের বাড়ি এবং তার আশপাশ এলাকায় খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারে যে, সে আদৌ আর্মিতে চাকরি করে না। আর্মির জাল লোগো, জাল কাগজপত্র দেখিয়ে ভুয়ো পরিচয় দিয়ে সে বিয়ে করেছিল। তারপর থেকে সে নানা অছিলায় টাকা হাতিয়ে চলছিল। এরপরেই গতকাল তার স্ত্রী শর্মি বিশ্বাস নিজেই বাগদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

এদিন ওই যুবক শ্বশুরবাড়িতে টাকা নেওয়ার জন্য আসতেই বাগদা থানায় খবর দেওয়া হয়। এরপর পুলিশ এসে তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার তাকে বনগাঁ আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে তিন দিনের জন্য পুলিশ হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।



No comments:

Post a Comment