Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, 17 July 2021

ইস্তফার জল্পনা ওড়ালেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা

ইস্তফার জল্পনা ওড়ালেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা

সমকালীন প্রতিবেদন : চাটার্ড ফ্লাইটে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা দিল্লি উড়ে যাওয়ার ঘটনায় তাঁর ইস্তফা ঘিরে ছড়ানো জল্পনায় শনিবার সকালে নিজেই রীতিমতো জল ঢেলে দিয়েছেন। বলেছেন, এসব খবরের কোনও ভিত্তি নেই। যদিও তাতে তাঁর আচমকা দিল্লি সফর নিয়ে জল্পনার অবসান হচ্ছে না।

শুক্রবার চাটার্ড ফ্লাইটে বেঙ্গালুরু থেকে দিল্লি উড়ে এসেছিলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা। তাঁর সঙ্গে বিশেষ বিমানে রাজধানীতে আসেন পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য সহ বিজেপির কিছু নেতা। দিল্লিতে পা রেখেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এরপরই জল্পনা ছড়ায়, কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী কি ইস্তফা দিতে চলেছেন? কারণ, বেশ কিছুদিন ধরেই কর্নাটকের রাজনৈতিক পরিস্থিতি টালমাটাল। বিজেপির একাধিক বিধায়ক ইয়েদুরাপ্পার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। এমনকী স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। কর্নাটকে করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ মুখ্যমন্ত্রী, এমন অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। সব মিলিয়ে অনেকেই মনে করছেন, মুখ্যমন্ত্রীর পদ হারাতে পারেন ৭৮ বছরের এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ। 

যদিও তাঁর ইস্তফা ঘিরে ছড়ানো জল্পনায় শনিবার সকালে রীতিমতো জল ঢেলে দিয়েছেন ইয়েদুরাপ্পা। বলেছেন, এসব গুজব। ইয়েদুরাপ্পা এখন দিল্লিতে রয়েছেন। এদিন সকালে কর্ণাটক ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তাঁর ইস্তফা নিয়ে জল্পনার প্রশ্নে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এসব খবরের কোনও ভিত্তি নেই। একইসঙ্গে তিনি জানান, গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি। রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে তাঁদের মূলত কথা হয়েছে। ইয়েদুরাপ্পা বলেন, আরও বেশ কয়েকজন বিজেপির শীর্ষ নেতার সঙ্গেও কথা বলবেন তিনি। এমনকী কেন্দ্রের জলসম্পদ মন্ত্রীর সঙ্গেও তিনি রাজ্যের একটি জল প্রকল্প নিয়ে আলোচনা করবেন। 

তবে আচমকা ইয়েদুরাপ্পার এভাবে দিল্লি সফর নিয়ে জল্পনার অবসান হচ্ছে না। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার থাকলে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বিশেষ বিমানে চেপে এভাবে তড়িঘড়ি দিল্লি এলেন কেন ইয়েদুরাপ্পা। প্রসঙ্গত, তাঁর বিরুদ্ধে দলের অন্দরেই একের পর এক অভিযোগ উঠতে থাকায় সম্প্রতি ইয়েদুরপ্পা নিজেই জানিয়েছিলেন, দলের শীর্ষ নেতৃত্ব বললেই তিনি সঙ্গে সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দেবেন। তারই সূত্র ধরে বিশেষজ্ঞ মহলের অনেকেই মনে করছেন, পরিস্থিতি বেগতিক দেখে নিজের গদি বাঁচাতে জল মাপতে দিল্লি এসেছেন ইয়েদুরাপ্পা।



No comments:

Post a Comment