Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, 4 December 2021

JAWAD : বাংলায় জাওয়াদের প্রভাবে ঘূর্ণিঝড়ের বদলে শুধুই বৃষ্টির পূর্বাভাস

 ‌

Only-rain-instead-of-cyclones

দেবাশীষ গোস্বামী : ‌আবহাওয়া দপ্তরের ঘোষনায় আপাতত স্বস্তি এই বাংলার মানুষদের জন্য। ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের সরাসরি প্রভাব পরছে না এই বঙ্গে। সেখানে হালকা থেকে মাঝারি এবং কিছু ক্ষেত্রে ভারি বৃষ্টি হবে। কিছু ক্ষেত্রে হাওয়া বইবে। শনিবার এমনই পূর্বাভাস দিয়ে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। রবিবার জাওয়াদ পুরী এবং তার সংলগ্ন এলাকায় উপকুলভাবে প্রবেশ করার পর সে তার শক্তি হারিয়ে বাংলার দিকে আসবে। আর তার ফলে এই রাজ্যে ঘর্ণিঝড়ের বদলে জাওয়াদ নিম্নচাপে পরিনত হবে।


জাওয়াদের প্রভাবে শনিবার সকাল থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন হতে শুরু করে এই রাজ্যের। এদিন সকাল থেকে কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আকাশ মেঘে ঢেকে যায়। সঙ্গে সামান্য বৃষ্টি শুরু হয়েছে। রবিবার এই বৃষ্টির পরিবার কিছু জেলায় বাড়বে। সোমবার পর্যন্ত অনেক জেলায় ভারি বৃষ্টি হবে বলে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, হুগলি, হাওড়া, নদীয়া, মালদা, মুর্শিদাবাদ এবং পূর্ব বর্ধমানের একাংশ।  


এই মুহূর্তে জাওয়াদের অবস্থান রয়েছে পুরী থেকে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার দূরে। রবিবার দুপুরে তা পুরীতে এসে পৌঁছাবে। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস, উপকুলে প্রবেশ করার সময় জাওয়াদ তার শক্তি অনেকটাই হারাবে। সেক্ষেত্রে ঘূর্ণিঝড়ের বদলে তা নিম্নচাপে পরিনত হবে। ফলে ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা অনেকটা কম থাকছে। পুরী হয়ে জাওয়াদ নিম্নচাপ হিসেবে এই রাজ্যে প্রবেশ করবে। সেই কারণে ঘূর্ণিঝড়ের বদলে এই রাজ্যে বৃষ্টি হবে।


এদিন সকাল থেকেই প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরী, চাঁদিপুর, দীঘা সমুদ্র এলাকায় মাইক প্রচার করা হয়। সমুদ্রের ধার থেকে পর্যটকদের সরিয়ে দেওয়া হয়। পর্যটকদের সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়। সমুদ্রের ধার থেকে সমস্ত অস্থায়ী দোকান সরিয়ে নেওয়া হয়। অন্যান্য সময় সমুদ্রের ধারে যে গতিতে হাওয়া বইতে থাকে, এদিন তার থেকে গতির পরিমান বেশি ছিল। সমুদ্রও ছিল কিছুটা উত্তাল। তবে পর্যটকদের একাংশ এমন আবহাওয়া উপভোগ করেন। এদিন সকালে রাজ্যের সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা খালি পায়ে বাঁধ এলাকা পরিদর্শন করেন। নদী তীরবর্তী মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। 




No comments:

Post a Comment