Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Saturday, 18 December 2021

দিনের টুকিটাকি : ‌১৮ ডিসেম্বর, ২০২১

কলাগাছের চারা

শবরদের শিক্ষার আলোয় আনতে বিশেষ দায়িত্ব নিল পুরুলিয়ার বান্দোয়ান ব্লক প্রশাসন। তাদের এই কাজে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এলেন এলাকার ২ জন শিক্ষিত শবর যুবক। সেই উদ্দেশ্যে শনিবার বান্দোয়ানের কেতকী গ্রামে শবর শিক্ষা কেন্দ্রের সূচনা করলেন পুরুলিয়ার জেলাশাসক রাহুল মজুমদার। দিন কয়েক পরেই রাজ্য জুড়ে আরও এক দফায় দুয়ারে সরকার কর্মসূচির শিবির বসতে চলেছে। সেখানে ক্ষ্মীর ভান্ডার, স্বাস্থ্যসাথী, জাতিগত শংসাপত্র ইত্যাদির মতো রাজ্য সরকারের প্রকল্পগুলির সুবিধা এখনও যারা পান নি, তাঁরা যাতে শিবিরে গিয়ে আবেদনপত্র জমা দিয়ে সেই সুবিধা পেতে পারেন, সেব্যাপারে মানুষকে সচেতন করতে এদিন বাড়ি বাড়ি সমীক্ষা চালানো হয়। এই সমীক্ষা চালানোর সময় গুরুতর অপুষ্টিতে আক্রান্ত শিশুদের চিহ্নিত করে তাদের মায়েদের হাতে কলাগাছের চারা তুলে দিলেন পুরুলিয়ার জেলাশাসক রাহুল মজুমদার। উপস্থিত ছিলেন মহকুমা শাসক, বিডিও এবং অন্যান্য সরকারি আধিকারিকেরা।




প্রাক্তন সাংসদ

গাইঘাটার মৃত ব্যবসায়ী পরিতোষ তালুকদারের পরিবারের সঙ্গে দেখা করলেন বনগাঁর প্রাক্তন সাংসদ তথা মতুয়া মহাসংঘের সংঙ্ঘাধিপতি মমতা ঠাকুর। পরিবারের সুবিধা অসুবিধার বিষয়ে খোঁজ নেন। মমতা ঠাকুরকে কাছে পেয়ে নিজের অসহায়তার কথা তুলে ধরে সংসার চালাতে একটি কাজের দাবি জানালেন মৃতের স্ত্রী। পাশাপাশি, দোষীরা যাতে শাস্তি পায়, তার দাবিও জানানো হয়। সব কথা শুনে পাশে থাকার পাশাপাশি মতুয়া মহাসঙ্ঘের থেকে পরিতোষবাবুর দুই ছেলের পড়াশোনার জন্য সাহায্য করার আশ্বাস দেন মমতা ঠাকুর।  


‌মডেল প্রর্দশনী

অব্যবহৃত হিসেবে বাড়ির এক কোনে পরে থাকা সামগ্রী দিয়ে তৈরি রকমারি জিনিসের মডেল প্রর্দশনীর আয়োজন করল পুরুলিয়া শহরের বিএসএস সেন্ট্রাল পাবলিক স্কুল। শনিবার দুদিনের এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করলেন স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি কমল কিশোর রাজ গড়িয়া এবং ভজন আশ্রম শিক্ষা সমিতির সভাপতি বিনোদ কুমার রাঠি। উপস্থিত ছিলেন অন্যান্য বিশিষ্টজনেরা। স্কুলের অধ্যক্ষ প্রসেনজিৎ রায় এই প্রসঙ্গে জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত দু'বছর ধরে পড়ুয়ারা স্কুলে আসতে পারেনি। অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস হয়েছে। এই সম‌য়ে বাড়িতে অব্যবহৃত হিসেবে পরে থাকা জিনিস দিয়ে পড়ুয়াদের মডেল তৈরি করতে বলা হয়েছিল। তাদের সেই মডেলগুলি এই প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে। প্রতিটি ক্লাস থেকে পাঁচজনকে স্কুলের পক্ষ থেকে পুরষ্কৃত করা হবে।




No comments:

Post a Comment