Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Wednesday, 15 September 2021

দিনের টুকিটাকি : ‌১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 ‌হাবড়ায় গুলি, গ্রেপ্তার

উত্তর ২৪ পরগনার হাবরার হাটথুবা ঘোষপাড়ায় গুলি চালানোর ঘটনায় ১ জনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ।২০ জুলাই হাবরা টাউন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে শহীদ দিবসের আয়োজন করা হয়েছিল। সেই শহীদ দিবসের প্রস্তুতি পর্ব নিয়ে আলোচনা চলছিল। হাটথুবা ঘোষপাড়ায় তৃণমূল নেতা রাজীব সরকারের বাড়িতে আলোচনা চলাকালীন তিনজন বাইকে করে এসে রাজীব সরকারকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে হাবরা থানার পুলিশ গতকাল গভীর রাতে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ সূত্রে খবর ধৃত ব্যক্তির নাম সত্যজিৎ সাহা ওরফে পাপাই। বাড়ি হাবরার হাটথুবা বাদামতলার ৪ নম্বর ওয়ার্ডে। এ ব্যাপারে বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি বিপ্লব হালদার জানান, ভারতীয় জনতা পার্টি কোনও বন্দুক, পিস্তলের রাজনীতি করে না। হাবরা বিধানসভা এলাকায় এমন কোনও ঘটনা কখনও কেউ বলতে পারবে না। ধৃত সত্যজিৎ সাহা কে আজ বারাসত আদালতে পাঠানো হয়। 


ফাঁকা বাড়িতে চুরি

বাড়িতে না থাকার সুযোগে বাড়ি থেকে চুরি হলো লক্ষাধিক টাকা সহ সোনার গহনা। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হাবরা থানার জিওলডাঙ্গা দাসপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। বাড়িতে কেউ না থাকায় সেই বাড়ি থেকে চুরি হলো লক্ষাধিক টাকা সহ সোনার গহনা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দাসপাড়া এলাকার বাসিন্দা রাজ্যেশ্বর দাস ও তার স্ত্রী পারুল দাস রবিবার তাঁদের ছোট মেয়ের বাড়ি চারঘাটে যান। মঙ্গলবার বাড়িতে ফিরতে চেয়েও বৃষ্টির কারণে বাড়িতে ফিরতে পারেন নি ওই দম্পতি। বুধবার সকাল ন'টা নাগাদ বাড়িতে ফিরে দেখেন, ঘরের দরজার তালা ভাঙা। ঘরের ভেতরের শোকেস ভাঙা। শোকেসের  মধ্যে যে লকার রয়েছে, সেখান থেকে নগদ 80 হাজার টাকা চুরি যায়। এছাড়া একটি ঘটে প্রায় দশ হাজার টাকা ও একটি সোনার কানের পাশা, একটি আংটি চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা। রাজ্যেশ্বরবাবু চাষবাস করেন। তার নিজের শরীর অসুস্থ এছাড়া ছোট মেয়ের শারীরিক অসুস্থতার কারণে এতগুলি  টাকা ঘরে গচ্ছিত রাখেন। ঘরের মধ্যে যে শোকেস রয়েছে, তারই লকারে তালা বন্ধ করে রাখেন টাকাগুলি। এদিন সমস্ত খুইয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন দাস দম্পতি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বাড়িতে না থাকার কারণেই চুরি হয়েছে। এদিন বৃষ্টি হওয়ার কারণে আশেপাশের মানুষ কেউ কিছু টের পান নি। ঘটনাস্থলে আসে হাবরা থানা পুলিশ। পুরো ঘটনার তদন্ত করছে হাবরা থানার পুলিশ।


প্রধানের বাড়ি থেকে চুরি

প্রধানের বাড়ি থেকে চুরি গেল চন্দন গাছ। এলাকার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন খোদ তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধান।জানা গেছে, বীরভূমের রামপুরহাট থানার নারায়নপুর গ্রামে গতকাল রাতে সপরিবারে বাড়িতেই ঘুমিয়ে ছিলেন নারায়নপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান সুখেন পাল। আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন, বাড়ির উঠোনে থাকা চন্দন গাছটি নেই। গাছের গোড়া থেকে কেটে নিয়ে পালিয়েছে চোরেরা। বাড়িতে থাকলেও বৃষ্টি পড়ার কারনে কোনও আওয়াজ বুঝতে পারেন নি পরিবারের কেউ। বিষয়টি পুলিশে জানালে রামপুরহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করে। এদিকে, এলাকার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ তৃণমূল কংগ্রেসের গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান সুখেন পাল। তাঁর আক্ষেপ, প্রধানের বাড়িতে যদি এভাবে চুরির ঘটনা ঘটে, তাহলে এলাকার মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

No comments:

Post a Comment