Breaking

Post Top Ad

Your Ad Spot

Friday, 20 August 2021

৮৬ বছর বয়সে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিলেন হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

 

Secondary-at-the-age-of-86

মকালীন প্রতিবেদন : শিক্ষার কোনও বয়স হয় না। আরও একবার তার প্রমাণ দিলেন হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমপ্রকাশ চৌতালা। ৮৬ বছর বয়সে মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসলেন তিনি। পরীক্ষার সিট পড়েছিল সিরসার আর্যকন্যা সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে। চৌতালা সেখানে পৌঁছতেই ঘিরে ধরে সংবাদমাধ্যম। যদিও একটিও মন্তব্য করেননি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন, আমি এখানে ছাত্র। পরীক্ষা দিতে এসেছি। ফলে কোনও কথা বলব না। 

প্রসঙ্গত, পারিবারিক কারণে চৌতালার পড়াশোনায় ছেদ পড়ে বলে জানা গেছে। বাবা দেবীলাল রাজনীতিতে যুক্ত হয়ে পড়ার পর গোটা পরিবারের ভার এসে পড়ে চৌতালার কাঁধে। তারই জেরে মাঝপথে তাঁর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায়।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওপেন স্কুল থেকে ২০১৭ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন চৌতালা। উর্দু, বিজ্ঞান, সোশ্যাল স্টাডিজ ও ইন্ডিয়ান কালচার অ্যান্ড হেরিটেজ বিষয়ে তিনি ৫৩.৪ শতাংশ নম্বর পান। কিন্তু ফেল করেন ইংরেজিতে। দশম শ্রেণীর পরীক্ষা দিতে গিয়ে জেল থেকে পড়াশোনা করেছিলেন চৌতালা। 

জেবিটি শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সালের ২ জুলাই পর্যন্ত তিহার জেলে কাটাতে হয় তাঁকে। সেখান থেকেই ২০১৮ সালে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওপেন স্কুল থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষায় বসেন তিনি।মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্যারোলে মুক্তি পেলেও তাঁর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সিট পড়েছিল জেলের মধ্যেই। 

সূত্রের খবর, তিনি প্রথম ডিভিশনেই পাশ করেছেন।এর পর বিএ পরীক্ষায় বসার জন্য প্রস্তুতি শুরু করেন চৌতালা। কিন্তু গত ৫ আগস্ট তাঁকে জানানো হয়, তাঁর দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষার ফল এখনই প্রকাশ করা যাবে না। কারণ, তিনি দশম শ্রেণীর ইংরেজি পরীক্ষায় পাশ করেননি। ফলে দ্বাদশের ফল হাতে পেতেই দশম শ্রেণীর ইংরেজি পরীক্ষায় বসেন হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। 

পরীক্ষা দেওয়ার জন্য শিক্ষা দপ্তরের কাছে রাইটার চেয়ে আবেদন করেছিলেন চৌতালা। তাঁর সেই আবেদন গ্রহণ করা হয়। দু'ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে যান তিনি। জেল থেকে ছাড়া পেয়ে নিজের অ্যাকাডেমিক কেরিয়ার গড়ে তোলার পাশাপাশি রাজনৈতিক শক্তি বাড়াতেও তৎপর হয়েছেন চৌতালা। 

তাঁর দল একসময় হরিয়ানায় যথেষ্টই প্রাসঙ্গিক ছিল। কিন্তু বর্তমানে তা দুর্বল হয়ে পড়েছে। ছোট ছেলে অভয় চৌতালার পদত্যাগের পর ভারতীয় জাতীয় লোকদলের কোনও বিধায়ক নেই হরিয়ানা বিধানসভায়। বড় ছেলে অজয় চৌতালা ইতিমধ্যে জননায়েক জনতা পার্টির নামে নতুন দল গঠন করে আলাদা হয়ে গিয়েছেন।

No comments:

Post a Comment